উত্তরঃ- ক্বিয়াস এবং যুক্তি অনুযায়ী নামাযের মধ্যে অট্টহাসির কারনে, অযু ভঙ্গ হওয়ার কথা না। এটা ঈমাম শাফেয়ী (র) এর মত ও। কারণ, এটা নির্গত নাজাসত নয়। এ জন্য জানাযার নামাযে, তেলাওয়াতে সিজদা ও নামাযের বাহিরে, এর(অট্টহাসি) কারনে অযু ভঙ্গ হয় না। কিন্তু  রুকু-সিজদা বিশিষ্ট নামাযে অট্টহাসির ফলে অযু ভঙ্গের কারন সম্বন্ধ্যে হানাফিগণ বলেন, রাসূল (স) বলেছেন যে, তোমাদের  কেউ অট্টহাসি করলে, অযু ও নামায উভয়ই পুনরায় আদায় করবে। (দারা কুতনি ও তাবরানি)

সুতরাং, মাশহুর হাদিস ক্বিয়াস এর উপর প্রধান্য হবে। এছাড়া, এই হাদিসটি নামায সম্পর্কিত। তাই, নামাযে অট্টহাসির কারনে অযু ও নামায উভই ভঙ্গ হবে।

আর, কেউ কেউ বলেছেন, অট্টহাসির কারনে অযু ভঙ্গ হয় কিন্তু নামায ফাসিদ তথা ভঙ্গ হয় না।


উল্লেখ্য যে, অট্টহাসি মানে হলো যা নিজে এবং পার্শ্ববর্তী শুনতে পায়।

তথ্যসূত্র ঃ- হেদায়া ১ম খন্ড। 


Post a Comment

Previous Post Next Post