উত্তরঃ-  যদি কোনো ব্যক্তি জানাযার ওয়ালি তথা অভিভাবক না হয় এবং জানাযা শহর এলাকায় হয়, তাহলে সে জানাযা ছুটে যাওয়ার আশঙ্কায় তায়াম্মুম করে, জানাযার নামায পড়তে পারবে। কেননা, জানাযার কাযা নেই। আর, যদি সে ওয়ালি হয়, তাহলে সে পারবে না। কারন, তার অধিকার আছে জানাযার নামায দোহরানোর।

দুই নং উত্তরঃ- এভাবে কোনো ব্যক্তি যদি এমন অবস্থায় উপস্থিত হয় যে, অযু করলে ঈদের জামাত পাবে না। তাহলে সে তায়াম্মুম করে নামায পড়তে পারবে। কেননা, ঈদের নামাযের কাযা নেই।

তথ্যসূত্র ঃ- হেদায়া ১ম খন্ড, তায়াম্মুম অধ্যায়।


Post a Comment

Previous Post Next Post