সাম্প্রতিক ফেসআপ/Faceapp নামে একটি এপসের সাহায্যে কিছু লোক তার যুবক বয়সের ছবিকে বৃদ্ধ বয়সের ছবিতে রুপান্তরিত করছে, এরকম ছবি বিকৃত করে ফেসআপ করা কি সমীচীন বা জায়েয?

উত্তর: প্রথমে কয়েকটি হাদিস ও আয়াত উল্লেখ করা হলো:
  • 1) বুখারি শরিফের মাঝে এসেছে। হযরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রাদি:) বলেন--

لَعَنَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ المُتَشَبِّهِينَ مِنَ الرِّجَالِ بِالنِّسَاءِ، وَالمُتَشَبِّهَاتِ مِنَ النِّسَاءِ بِالرِّجَالِ

যেসব পুরুষ নারীর মত চলাফেরা, কথাবার্তা, সাজসজ্জা ও আচরণ  করে, তদ্রূপ যেসব নারী পুরুষের মতো চলাফেরা, কথাবার্তা, সাজসজ্জা ও আচরণ করে, তাদের ওপর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আ'লাইহি ওয়াসাল্লাম অভিশাপ দিয়েছেন।
 [দেখুন, হাদিস নং : ৫৮৮৫। মিরকাতুল মাফাতিহ, খণ্ড : ৭, পৃষ্ঠা : ২৮১৯]

>>ব্যাখ্যা: প্রশ্ন হলো, নবীজী কেন এ দু’শ্রেণিকে অভিশাপ দিয়েছেন?

প্রখ্যাত হাদিস বিশারদ মোল্লা আলি কারি রহ. তার উত্তর দিয়েছেন--

فَهَذَا الْفِعْلُ مَنْهِيٌّ لِأَنَّهُ تَغْيِيرٌ لِخَلْقِ اللَّهِ

এ কাজ নিষিদ্ধ হওয়ার কারণ হলো,এর মাধ্যমে আল্লাহর সৃষ্টিকে বিকৃত করা হয়।

  • 2) সুনানে আবু দাউদ  ও মুসনাদে আহমদে বর্ণিত অপর হাদিসে হযরত আবু হুরায়রা (রাদি:) বলেন--

لَعَنَ رَسُولُ اللَّهِ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ الرَّجُلَ يَلْبَسُ لِبْسَةَ الْمَرْأَةِ، وَالْمَرْأَةَ تَلْبَسُ لِبْسَةَ الرَّجُلِ

যে পুরুষ মহিলাদের পোশাক পরে এবং যে নারী পুরুষদের পোশাক পরে,এমন লোকদেরকে  রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আ'লাইহি ওয়াসাল্লাম অভিশাপ দিয়েছেন।

[দেখুন, আবু দাউদ, হাদিস নং : ৪০৯৮ মুসনাদে আহমদ : ৮৩০৯]

  • 3) বুখারি শরিফের আরেকটি হাদিসে এসেছে--
لَعَنَ النَّبِيُّ صَلَّى اللهُ عَلَيْهِ وَسَلَّمَ المُخَنَّثِينَ مِنَ الرِّجَالِ

>>ব্যাখ্যা: ইমাম নববি রহ. এর ব্যাখ্যায় লিখেছেন--

مِنْ يَتَكَلَّفُ أَخْلَاقَ النِّسَاءِ وَحَرَكَاتِهِنَّ وَسَكَنَاتِهِنَّ وَكَلَامِهِنَّ وَزِيِّهِنَّ، فَهَذَا هُوَ الْمَذْمُومُ الَّذِي جَاءَ فِي الْحَدِيثِ لَعْنُهُ

পুরুষ হয়ে মহিলাদের আচরণ,চলাফেরা, কথাবার্তা,বেশ-ভূষা অনুকরণ করা-এটাই সেই নিন্দিত ও গর্হিত কাজ,যার ব্যাপারে হাদিসের মাঝে লানত এসেছে। [দেখুন, মিরকাতুল মাফাতিহ]

  • 4) মনে রাখতে হবে, শয়তান কিন্তু আল্লাহকে চ্যালঞ্জ করে বলেছিল--

وَلآمُرَنَّهُم فَلَيُغَيِّرُنَّ خَلقَ اللَّهِ

ّআমি অবশ্যই মানুষদেরকে আদেশ করব তখন তারা আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে পরিবর্তন আনবে। [সূরা নিসা : ১১৯]

>>ব্যাখ্যা: মুফাসসিরিনে কেরাম এর ব্যাখ্যায় লিখেছেন--

تغيير الخلقة الظاهرة بالوشم، والوشر والنمص والتفلج للحسن، ونحو ذلك مما أغواهم به الشيطان فغيروا خلقة الرحمن.

উল্কি আঁকা,সৌন্দর্যের জন্যে ভ্রু প্লাক করা এবং এ জাতীয় অন্যান্য কাজের মাধ্যমে বাহ্যিক ত্বকের মাঝে পরিবর্তন আনাটা আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে পরিবর্তন করার মাঝে শামিল।

  • 5) হযরত হাসান বসরি (রহ:) কে একবার জিজ্ঞেস করা হয়েছিল--
حدثنا أبو هلال الراسبي قال : سأل رجل الحسن : ما تقول في امرأة قشرت وجهها؟ قال : ما لها ، لعنها الله! غيرت خلق الله!

যে মহিলা তার চেহারার ত্বক বা চামড়া তোলে, তার সম্পর্কে আপনি কী বলেন?

উত্তরে হাসান (রহঃ) বলেন, আল্লাহ্ তাআ'লা তার ওপর অভিশাপ করবেন। কেননা সে আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে পরিবর্তন এনেছে।

★★★ইদানিং ফেসআপ/Faceapp নামে একটি এপসের সাহায্যে কিছু লোক তার যুবক বয়সের ছবিকে বৃদ্ধ বয়সের ছবিতে রূপান্তরিত করছে।

  • প্রথমত: নিঃসন্দেহে এটি অর্থহীন কাজ।

  • দ্বিতীয়ত: নিঃসন্দেহে এর মাধ্যমে আল্লাহর দেওয়া আপনার যুবক বয়সের সতেজ চিত্রকে বুড়ো বয়সের বলিরেখা পড়া চেহারার চিত্রে পরিণত করা হচ্ছে। সন্দেহ নেই, এটাও আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে এক প্রকার পরিবর্তন। 

→যদি (আল্লাহর সৃষ্টির মাঝে পরিবর্তন আনার কারনে)
পুরুষ হয়ে নারীসুলভ আচরণ করা পরিষ্কার হারাম ও অভিশপ্ত কাজ হয়ে থাকে, তাহলে এপসের সাহায্যে যুবক চিত্র/ছবিকে বুড়ো বয়সের চিত্রে/ছবিতে রূপান্তরিত করে সেটাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করে হাসি-বিদ্রূপ ও অর্থহীন কর্মে পরিণত করাটা কতটা সমীচিন হবে????

মহান আল্লাহ্ তাআ'লা আমাদেরকে এমন আপত্তিকর, অর্থহীন, বিকারগ্রস্ত কর্মকাণ্ড এড়িয়ে চলার তাওফিক দিন। আমীন..!

♥♥♥মাসআ'লা তাহকীক করেছেনঃ

মুফতি মোহাম্মদ আলী ক্বাসেমী সাহেব (হাফিজাহুল্লাহ্)

♣♣♣পরিচালক ও প্রধান মুফতী:-

জামিআ ইমাম কাসেম নানুতবী ঢাকা, বাংলাদেশ


Post a Comment

Previous Post Next Post