২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের অনার্স ১ম বর্ষে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। নিম্নে প্রকাশিত ভর্তি বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ২০১৯ সালের সব ইউনিটে ভর্তির জন্য আবেদনের যোগ্যতা সহ ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতি  বর্ণনা করা হলোঃ

সাধারণ যোগ্যতা
  •  ২০১৪ হতে ২০১৭ পর্যন্ত মাধ্যমিক/সমমান এবং ২০১৯ সালের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ১ম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার জন্য আবেদন করতে পারবে। তবে প্রত্যেক ইউনিটের ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করতে হবে হবে।

  • IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level  পরীক্কার্থীদের ক্ষেত্রেঃ ২০১৪ হতে ২০১৭ সাল পর্যন্ত IGCSE/O Level পরীক্ষায় অন্তত ৫টি বিষয়ে এবং ২০১৯ সালের IAL/GCE A Level পরীক্ষায় অন্তত ২টি বিষয়ে উত্তীর্ণ ছাত্র-ছাত্রী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে। তাদের IGCSE/O Level এবং IAL/GCE A Level মোট ৭টি বিষয়ের মধ্যে ৪টি বিষয়ে কমপক্ষে B গ্রেড পেতে হবে।

  • সমমানের বিদেশি সার্টিফিকেট/ডিপ্লোমা ডিগ্রীধারীগণ সংশ্লিষ্ট ইউনিট প্রধানের অনুমতি সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবে। তবে সংশ্লিষ্ট অনুষধ কর্তৃক সমতা নিরুপিত হলেই কেবল তারা ভর্তি পরিক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এছারাও সকল শিক্ষার্থীকে সংশ্লিষ্ট ইউনিট কর্তৃক অন্যান্য শর্ত পূরন করতে হবে। নিম্নে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি ইউনিটের ভর্তির যোগ্যতা দেওয়া হলোঃ


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ইউনিটের ভর্তি যোগ্যতাঃ নিম্নে ক, খ, গ, ঘ এবং চ ইউনিটে আবেদনের যোগ্যতা আলাদাভাবে বর্ণনা করা হলোঃ
  • ক ইউনিট ঃ বিজ্ঞান ও কৃষি বিজ্ঞান শাখা থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা বোর্ডের বিজ্ঞান শাখা থেকে আলিম ও IGCSE/O LEVEL এবং IAL/GCE A LEVEL  পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-8.00 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.50 থাকতে হবে।

  • খ ইউনিট ঃ মানবিক শাখা থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা বোর্ডের মানবিক শাখা থেকে আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-7.00 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.00 থাকতে হবে।

  • ইউনিট 
  • 1)ব্যবসায় শাখা উচ্চ মাধ্যমিক, ডিপ্লোমা-ইন বিজনেস স্টাডিজ, ডিপ্লোমা-ইন  কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-7.50 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.50 থাকতে হবে। 

  • এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ডিপ্লোমা-ইন বিজনেস স্টাডিজ, ডিপ্লোমা-ইন  কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট শাখা থেকে আগত শিক্ষার্থীদের ACCOUNTING বিষয়টি অবশ্যই থাকতে হবে এবং উক্ত বিষয়ে কমপক্ষে GPA-3.00 পেতে হবে।
 
  • ইউনিট 
  • 1) মানবিক শাখা থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক এবং মাদ্রাসা বোর্ডের মানবিক শাখা থেকে আলিম পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/আলিম/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-7.00 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.00 থাকতে হবে।  

  • 2) বিজ্ঞান, কৃষিবিজ্ঞান এবং গার্হস্থ্য অর্থনিতি এবং মাদ্রাসা বোর্ডের বিজ্ঞান শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-7.50 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.50 থাকতে হবে। 

  • 3) ব্যবসায় শাখা উচ্চ মাধ্যমিক, ডিপ্লোমা-ইন বিজনেস স্টাডিজ, ডিপ্লোমা-ইন  কমার্স ও বিজনেস ম্যানেজমেন্ট পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-7.50 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.50 থাকতে হবে। 

  • উল্লেখ্য যে, ঘ ইউনিটে ভর্তির জন্য উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় কোনো বিষয়ে B গ্রেড এর নিচে আবেদন গ্রহনযোগ্য হবে না। 


  • ইউনিটঃ উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় যেকোনো শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয়সহ প্রাপ্ত ফলাফল-দ্বয়ের যোগফল কমপক্ষে GPA-6.50 পয়েন্ট হতে হবে এবং মাধ্যমিক/সমমান ও উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় আলাদাভাবে কমপক্ষে GPA- 3.00 থাকতে হবে। 


ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতিঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে আসন্ন স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় এবার ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা যুক্ত হয়েছে। এর আগে পুরো ১০০ নম্বরের বহুনির্বাচনি (এমসিকিউ) প্রশ্ন থাকলেও এবার প্রথমবারের মতো এটি ৬০ নম্বরে নেমে আসছে এবং বাকি ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন সৃজনশীল পদ্ধতিতে তৈরি করা হবে। বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিক ধারণা দিয়েছেন জেনারেল অ্যাডমিশন কমিটির একাধিক সদস্য।


এবার লিখিত থাকবে ৪০ নম্বরের এবং এমসিকিউ থাকবে ৬০ নম্বরের। তবে এমসিকিউর জন্য সময় থাকবে ৪০ মিনিট এবং ৫০ মিনিট থাকবে লিখিত অংশের জন্য।








 

Post a Comment

Previous Post Next Post