জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) ভর্তি কার্যক্রমের রিলিজ স্লিপের বিজ্ঞপ্তি আজ (১৭-১২-২০১৯) প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী ১ম রিলিজ স্লিপের আবেদন শুরু হবে ১৯-১২-২০১৯ তারিখ হতে এবং তা শেষ হবে ৩১-১২-২০১৯ তারিখে। নিম্নে মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) ভর্তির ১ম রিলিজ স্লিপে আবেদন করার পদ্ধতি সহ রিলিজ স্লিপে ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যবলী দেওয়া হলো:



মাস্টার্স শেষ পর্ব নিয়মিত ১ম রিলিজ স্লিপে যারা আবেদন করতে পারবেন:

  • যারা পূর্বে কোনো মেধা তালিকায় স্থান পায়নি
  • যারা মেধা তালিকায় স্থান পেয়েও ভর্তি হয় নি
  • যারা ভর্তি হয়ে ভর্তি বাতিল করেছে


মাস্টার্স শেষ পর্ব নিয়মিত ১ম রিলিজ স্লিপে ভর্তি সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তারিখ:

  • আবেদনের সময়সীমা: ১৯/১২/২০১৯ থেকে ৩১/১২/২০১৯ তারিখ, রাত ১২:০০ টা পর্যন্ত।
  • ১ম রিলিজ স্লিপের ফল প্রকাশ: --/--/২০২০
  • ১ম রিলিজ স্লিপ হতে ভর্তির সময়সীমা: --/--/২০২০


মাস্টার্স শেষ পর্ব নিয়মিত ১ম রিলিজ স্লিপে আবেদন করার পদ্ধতি ২০১৮-১৯:


♥→প্রার্থী নিজেই ঘরে বসে মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) ভর্তির ১ম রিলিজ স্লিপ এ আবেদন করতে পারবেন। এ জন্য তাকে যেমন কোথাও যেতে হবে না, তেমনি আবেদন করার পর কলেজে কোনো কিছু জমা দেওয়া লাগবে না।

♥→এছাড়া প্রাথমিক আবেদনের জন্য কোনো ফি' দেওয়া লাগবে না এবং ৩ টি কলেজে আবেদন করতে হবে।

♥→কলেজ কর্তৃক ভর্তি নিশ্চায়নও করতে হবে না।

♥→ নিম্নে ১ম রিলিজ স্লিপ -এ আবেদন করার পদ্ধতি দেওয়া হলো:

  • ১ম রিলিজ স্লিপে প্রাথমিক আবেদন করতে হলে, প্রার্থীকে প্রথমে এখান থেকে আবেদন ফরমের রোল নম্বর ও পিন নম্বর দিয়ে এন্ট্রি দিতে হবে।
  • সঠিকভাবে রোল ও পিন নম্বর এন্ট্রি দিলে নিম্নোক্ত ছবির মত একটা পেইজ ওপেন হবে।


  • এখন সেখান থেকে Release Slip অপশন এ ক্লিক করুন।
  • তারপর নিম্নোক্ত ছবির মত একটি পেইজ ওপেন হবে।


  • এরপর College Selection থেকে প্রথমে Division দিন (অর্থাৎ আপনি যে কলেজ চয়েজ দিতে চাচ্ছেন, সেটা যে জেলায় অবস্থিত, সেই জেলা সিলেক্ট করুন)।
  • তারপর, District select করুন। 
  • এরপর কলেজের নাম দিন। কলেজ সিলেক্ট করার সাথে সাথে নিম্নোক্তভাবে ডান পাশে সাব্জেক্ট লিস্ট এসে উঠবে। 

  • এখানে লক্ষ্যনীয় যে, সাবজেক্টের সাথে সিট সংখ্যা উল্লেখ থাকবে। তাই, যদি কোনো কলেজ সিলেক্ট করার পর, উক্ত কলেজের সিট কম থাকে  বা উক্ত কলেজের বিষয় আপনার পছন্দ হয় নি। তাহলে, সেটা বাদ দিয়ে অন্য কলেজে সিলেক্ট করবেন। যেটাতে সিট বেশি আছে সেটা দিতে পারেন। এভাবে আপনার ইচ্ছানুযায়ী কলেজ সিলেক্ট করতে পারবেন।
  • তারপর পছন্দ অনুযায়ী সাব্জেক্ট আসলে, সাব্জেক্টটি Select করবেন। একটি সাব্জেক্ট সিলেক্ট করলে নিম্নোক্তভাবে আসবে। 

  •  এরপর নিচের দিকে Next অপশনে ক্লিক করবেন।

  •  এখন পর্যন্ত আপনার একটি কলেজ চয়েজ দেওয়া হলো।
  • এভাবে উপরিউক্ত নিয়মানুযায়ী আবার কলেজ ও সাব্জেক্ট চয়েজ দিয়ে Next এ ক্লিক করবেন।
  • এভাবে আপনাকে সর্বনিম্ন ৩ টি কলেজে আবেদন করতে হবে।
  • ৩ টি কলেজ চয়েজ দেওয়া হলে নিচের দিকে থাকা Next অপশন এর পাশে Preview Application এ ক্লিক করুন। এরপর তা নিম্নোক্ত ছবির মত প্রদর্শিত হবে।

  • তারপর দেখে নিন, আপনি যে যে কলেজে চয়েজ দিয়েছেন তা সঠিক আছে কি না। যদি ভুল হয়, তাহলে সম্পূর্ণ কেনসেল করে, আবার প্রথম থেকে রোল ও পিন দিয়ে প্রবেশ করে আপনাকে আবেদন করতে হবে। আর, যদি সঠিক হয়, তাহলে নিচে থাকা submit অপশনে ক্লিক করুন।
  • তারপর নিম্নোক্ত ছবির মত একটি পেইজ ওপেন হবে। 

  • তারপর সেখান থেকে Download pdf অপশনে ক্লিক করুন।
  • এরপর pdf ডাউনলোড হবে। সেটা প্রিন্ট করুন। 
  • এরপর সেটা সযন্তে সংরক্ষন করে রাখুন


মাস্টার্স শেষ পর্ব নিয়মিত ১ম রিলিজ স্লিপে আবেদন করার পর করণীয়: 

  • উক্ত রিলিজ স্লিপের ফরম কোথাও জমা দিতে হবে না।
  • এবং এই আবেদনের সময় কোনো ফি দেওয়া লাগবে না।
  • এবং ফলাফল প্রকাশ হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।



মাস্টার্স শেষ পর্ব নিয়মিত রিলিজ স্লিপ সম্পর্কিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর:

  • ০১) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে কি পূর্বের কলেজে পূনরায় আবেদন করা যাবে?
  • →উত্তর:  হ্যাঁ, আবেদন করা যাবে। আপনি পূর্বের কলেজ সহ মােট ৩ টি কলেজে নতুন করে বিষয় নির্বাচন করে আবেদন করতে পারবেন। 
  • ২) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপের ফরম কোথায় জমা দিতে হবে?
  • →উত্তরঃ কোথাও জমা দিতে হবে না। স্লিপটি নিজের কাছে সংরক্ষন করে রাখতে হবে।
  • ৩) প্রশ্ন:- কোন ৩ টি কলেজ নির্বাচন করতে হবে?
  • →উত্তরঃ আপনার পছন্দ অনুযায়ী বাংলাদেশের যে কোন প্রান্তের সর্বোচ্চ ৩ টি কলেজ নির্বাচন করতে পারবেন।
  • ৪) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপ পূরণ করার জন্য কি কি লাগবে?
  • →উত্তর: শুধু রােল নম্বর ও পিন নম্বর লাগবে।
  • ৫) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপ -এ আবেদনের সময় বেসরকারি কোন কলেজ চয়েস দেওয়া যাবে কিনা?
  • →উত্তরঃ হ্যা, আপনি সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে মােট ৩ টা (সর্বোচ্চ) কলেজ নির্বাচন করতে পারেন।
  • ৬) প্রশ্ন:- কোন কলেজে কোন বিষয়ে কতগুলাে সিট আসন খালি আছে, তা কিভাবে জানবাে?
  • →উত্তরঃ যখন অনলাইনে রিলিজ স্লিপ ফরম পূরণ করবেন, তখন কলেজের নাম সিলেক্ট করার সাথে সাথে, ডান পাশের বক্সে বিষয়সহ কয়টা করে আসন খালি আছে, তা দেখাবে।
  • ৭) প্রশ্ন:- মেরিট লিস্ট -এ যে সাবজেক্ট এসেছে, সেটাতে ভর্তি হতে না চাইলে ১ম রিলিজ স্লিপ নিতে পারবাে কি?
  • →উত্তরঃ হ্যা, পারবে।
  • ৮) প্রশ্ন: রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে যে বিষয় পাবাে তা কি পরিবর্তন করা যাবে? 
  • →উত্তরঃ না, রিলিজ স্লিপে যে বিষয় পাবেন, সে বিষয়েই আপনাকে ভর্তি হতে হবে।
  • ৯) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপের ফলাফল কখন প্রকাশিত হয়?
  • →উত্তরঃ অনলাইনে আবেদন শেষ হওয়ার এক সপ্তাহ এর মধ্যেই রিলিজ স্লিপের ফলাফল প্রকাশিত হয়।
  • ১০) প্রশ্ন:- রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে আবেদন করলে চান্স পাওয়ার নিশ্চয়তা কতটুকু?
  • →উত্তরঃ আসলে জেলা পর্যায়ের কলেজগুলােতে শূন্য আসনের সংখ্যা খুবই কম থেকে থাকে, অপর দিকে উপজেলা পর্যায়ের কলেজগুলােতে অনেক বেশি আসন খালি থাকে। তাই আবেদন করার সময় এই বিষয়টি গুরুত্ব দিলে ৯৫% পর্যন্ত ভর্তির নিশ্চয়তা থাকবে।


মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) ১ম রিলিজ স্লিপে আবেদনের বিজ্ঞপ্তি ২০১৮-১৯

দেখুন-




মাস্টার্স শেষ পর্ব (নিয়মিত) ভর্তির বিস্তারিত তথবলি দেখুন এখান থেকে


Post a Comment

Previous Post Next Post